Templates by BIGtheme NET
Home » প্রবাসী বাংলা » মধ্য শ্রাবণে লন্ডনে বৈশাখী মেলা

মধ্য শ্রাবণে লন্ডনে বৈশাখী মেলা

মধ্য শ্রাবণে লন্ডনে অনুষ্ঠিত হলো বাঙালির প্রাণের উৎসব বৈশাখী মেলা। টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের উদ্যোগে রোববার (৩১ জুলাই) পূর্ব লন্ডনের বাংলাটাউন সংলগ্ন উইভার্স ফিল্ডে বসেছিলো এ মেলা।

এ উপলক্ষে উইভার্স ফিল্ডে বসে প্রবাসী বাঙালিদের মিলন মেলা। পবিত্র রমজানের কারণে নির্ধারিত সময়ের এতো পর আয়োজন করা হয় এবারের মেলার।

মেলায় ব্রিটেনের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে হাজারো প্রবাসী বাঙালি অংশ নেন। এ যেন শেকড়ের টানে একই মোহনায় মিলন সবার। তারুণ্যের উচ্ছ্বাসের সঙ্গে সব প্রজন্মের একাকার হওয়ার চেষ্টা মেলায় যুক্ত করেছিল এক ভিন্ন মাত্রা।

ঢাক-ঢোল, হরেক বাদ্য-বাজনা আর রঙ-বেরঙের সাজপোশাকে বর্ণিল এ মেলা জমজমাট ছিল দিনভরই। মেলার সুবাদে দীর্ঘদিন পর সাক্ষাৎ হয় বন্ধু-বান্ধব-পরিচিত মুখের সঙ্গে।

পশ্চিমা ধারায় বেড়ে ওঠা প্রজন্মের শেকড়মুখী হওয়ার একটি উপলক্ষও যেন হয়ে উঠলো এই মেলা। মেলায় বিভিন্ন ধরনের স্টল বসেছিল উইভার্স ফিল্ডে।  এগুলোর মধ্যে ছিল বই, পেন্টিং, বাঙালি পোশাক-আশাক, বাচ্চাদের খেলনা ইত্যাদি। বিভিন্ন সামাজিক, সাস্কৃতিক ও সাহিত্য সংগঠনও নিজেদের প্রতিষ্ঠানের স্টল নিয়ে বসেছিল মেলায়।

সকাল ১১টায় বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা দিয়ে  শুরু হয় মেলার আনুষ্ঠানিকতা। নানা রঙে-ঢঙে সেজে বিভিন্ন রঙের ব্যানার, ফেস্টুন ও প্রতিকৃতি নিয়ে শোভাযাত্রায় অংশ নেন বিপুলসংখ্যক মানুষ। বাংলা বর্ণমালা খচিত বড় বড় ব্যানার ফেস্টুন ও বাংলাদেশের জাতীয় পতাকার উপস্থিতি মেলার শোভাযাত্রাকে করে তোলে আরও বর্ণিল আরও আকর্ষণীয়।

মেলার পুরো সময়ই উইভার্স ফিল্ডের মূল মঞ্চে চলে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। নন্দিত সংগীতশিল্পী আইয়ুব বাচ্চু ও হাবিব ওয়াহিদসহ বাংলাদেশ ও ব্রিটেনের খ্যাতিমান শিল্পীরা এতে অংশ নেন।

গানের ফাঁকে ফাঁকে বাঙালি বংশোদ্ভূত প্রথম ব্রিটিশ এমপি রোশনারা আলী, ব্রিটেনে বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার খোন্দকার মোহাম্মদ তালহা, টাওয়ার হ্যামলেটসের নির্বাহী মেয়র জন বিগস, স্পিকার কাউন্সিলর খালিস উদ্দিন, ডেপুটি মেয়র সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

এপ্রিলের মধ্যভাগে বাংলা নববর্ষ হলেও সুন্দর আবহাওয়ার আশায় লন্ডনে প্রতিবছর মে মাসের দ্বিতীয় বা তৃতীয় সপ্তাহে বৈশাখী মেলা উদযাপিত হয়ে আসছে।  পবিত্র রমজান ও মেলা ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব বদল হওয়ায় এবার মেলা ১৬ শ্রাবণ অনুষ্ঠিত হয়।

কয়েক বছর ধরে প্রবাসী বাঙালিদের আড্ডার প্রাণকেন্দ্র বাংলাটাউন থেকে মেলা বেশ দূরে ভিক্টোরিয়া পার্কে হলেও এবার তা উইভার্স ফিল্ডে ফিরিয়ে আনা হয়।
ব্রিটেনে যে ক’টি উৎসবকে মূলধারায় স্বীকৃতি দেওয়া হয় তার মধ্যে অন্যতম বাঙালির বৈশাখী মেলা। এই মেলা ইউরোপের দ্বিতীয় বৃহত্তম মেলা হিসেবেও ইতোমধ্যে স্বীকৃতি পেয়েছে।

 

www.crimevisionbd.com

Facebook Comments