Templates by BIGtheme NET
Home » খেলাধুলা » আজ মুখোমুখি হবে টাইগার- নিউজিল্যান্ড

আজ মুখোমুখি হবে টাইগার- নিউজিল্যান্ড

ক্রাইমভিশনবিডি ডেস্ক:

মোট পাঁচ ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে আজ টাইগারদের মুখোমুখি হচ্ছে সফরকারী নিউজিল্যান্ড। মিরপুর শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে বিকাল ৪টায়। তবে এর আগে দলের প্রস্তুতি নিয়ে ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে গতকাল কথা বলেন দুই দলের অধিনায়ক।

 

 

তাছাড়া বিশ্বকাপ দল ঘোষণা নিয়ে কোচের সঙ্গে একমত মাহমুদউল্লাহ। বাংলাদেশ অধিনায়কেরও চাওয়া ছিল নিউজিল্যান্ড সিরিজের আগেই ঘোষণা করা হোক বিশ্বকাপ দল। সেই চাওয়া পূরণ না হলেও অবশ্য সমস্যার খুব বেশি কিছু দেখছেন না এ অধিনায়ক। দল তৈরি আছে জানিয়ে দিলেন তিনি।

 

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দল ঘোষণার শেষ তারিখ আগামী ১০ সেপ্টেম্বর। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের সিরিজের শেষ ম্যাচ সেদিনই। তবে শেষ ম্যাচ পর্যন্ত অপেক্ষা করবে না বাংলাদেশের নির্বাচকরা। দল ঘোষণা করা হবে সিরিজের মাঝপথেই।

 

যে দুটি বা তিনটি ম্যাচের পর দল ঘোষণা করা হবে। সেই ম্যাচগুলোর পারফরম্যান্সও খুব একটা থাকবে না বিশ্বকাপ দল নির্বাচনে। দল যে এক রকম তৈরিই হয়ে গেছে! কোচ রাসেল ডমিঙ্গো বলেছিলেন, নিউজিল্যান্ড সিরিজের আগেই দল ঘোষণা করলে ভালো হতো। একই কথা শোনা গেল গতকাল সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর কণ্ঠেও।

 

‘দল মোটামুটি অল সেট। কোচ ও আমার কথা হয়েছে এবং আমরা একমত হয়েছি। নির্বাচকরা তাড়াতাড়িই হয়তো দল দিয়ে দেবেন। হ্যাঁ, হয়তো এটা ভালো হতো, যদি সিরিজের আগে দল দেওয়া হতো। তাহলে ক্রিকেটাররা নির্ভার থাকতে পারত।’ ‘তবে এটা আমাদের নিয়ন্ত্রণে নেই। আমাদের কাজ ক্রিকেট খেলা এবং মাঠে নিজেদের কতটা মেলে ধরা যায়। ওই ব্যাপারগুলো নিয়েই আমাদের চিন্তা করা উচিত। ওভাবেই আগানো উচিত। নির্বাচক ও টিম ম্যানেজমেন্টের যা কাজ, তারা দেখবে।’

 

অন‌্য দিকে অস্ট্রেলিয়াকে যে ধরনের উইকেটের পরীক্ষায় ঠেলে দিয়েছিল বাংলাদেশ। তবে সব রকম উইকেটের জন্যই প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে নিউজিল্যান্ড। এমনকি আরো চ্যালেঞ্জিং কিছুর জন্যও তারা প্রস্তুত বলে জানালেন কিউই অধিনায়ক টম ল্যাথাম। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের ৪-১ ব্যবধানের সিরিজ জয়ে আলোচনার কেন্দ্রে ছিল উইকেট। ঢাকা মিরপুরের উইকেট এমনিতেই মন্থর। কিন্তু ওই সিরিজে উইকেট ছিল ব্যাটিংয়ের জন্য আরো বেশি কঠিন। বল গ্রিপ করেছে, টার্ন করেছে অনেক।

 

তবে নিউজিল্যান্ড তাই এই সিরিজের জন্য দেশে অনুশীলন করেছে ওরকম উইকেট তৈরি করে। সিরিজ শুরুর আগে গতকাল ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক ল্যাথাম বললেন, প্রস্তুতিতে কোনো ঘাটতি তারা রাখেননি।

 

‘জানা যায় মাসখানেক আগে অস্ট্রেলিয়া যে রকম উইকেট পেয়েছে। আমরা সে রকম উইকেটের জন্যই অনেকটা প্রস্তুত। এদেশে মাউন্ট মঙ্গানুই ও লিঙ্কনে খুব ভালো ক্যাম্প করে এসেছি আমরা। আমাদের প্রত্যাশার চেয়েও চ্যালেঞ্জিং উইকেটের জন্য প্রস্তুতি নেওয়ার চেষ্টা করেছি আমরা। সেখানেও পাঁচ দিনে খুব ভালো অনুশীলন হয়েছে আমাদের। চেষ্টা করেছি এখানকার আবহাওয়া ও উইকেটের সঙ্গে যতটা সম্ভব মানিয়ে নিতে।’

 

তবে প্রস্তুতি আর মূল লড়াইয়ের মধ্যে ফারাক যে বিশাল, এটাও অবশ্য জানেন ল্যাথাম। তবে মাঠের লড়াইয়ের চ্যালেঞ্জও তারা জিতবেন বলে আশাবাদী বাঁহাতি এই কিপার ব্যাটসম্যান।

 

কিন্তু তার পরও, ম্যাচে উইকেট যেমনই থাকুক, মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করতে হবে। পাঁচ ম্যাচে আমরা জানি যেকোনো কোনো উইকেটে দু-দিনটি ম্যাচও হবে। যা প্রতিটি ম্যাচের উইকেটে মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করতে হবে।’

 

‘তবে তা অবশ্যই খুব চ্যালেঞ্জিং হবে। আমরা জানি, এই কন্ডিশনে ওরা কতটা ভালো। অভিজ্ঞতায় সমৃদ্ধ ওরা। তবে আমরা চেষ্টা করেছি যতটা সম্ভব সেরা প্রস্তুতি নিতে। সেটাই আমাদের হাতে আছে। মাঠে নেমে চেষ্টা থাকবে পরিকল্পনা বাস্তবায়নের চেষ্টা করা ও দলের জন্য নিজেদের মেলে ধরা। তবে অস্ট্রেলিয়া সিরিজেও দেখেছি ওরা কতটা ভালো। তবে ছেলেরা চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত।’

Facebook Comments