Templates by BIGtheme NET
Home » অন্যান্য » দামি মশলা জাফরান!

দামি মশলা জাফরান!

ক্রাইমভিশনবিডি ডেস্ক:

ক্রাইমভিশনের মাধ‌্যমে আমরা জানবো, জাফরান কি, এর উৎপত্তি, জাফরানের ব্যবহার, খাওয়ার নিয়ম, উপকারিতা, রূপচর্চায় জাফরানের ব্যবহার, তৈরির নিয়ম, চাষ পদ্ধতি, এর দাম সম্পর্কে বিস্তারিত।

 

জাফরান কি

তবে ইংরেজিতে Saffron বা জাফরান একটি মশলা জাতীয় উদ্ভিদ। যা কিনা বিশ্বের সবচেয়ে মুল্যবান মশলাগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি। যা মূলত জাফরান ক্রোকাস নামে পরিচিত। জাফরান মূলত খাবারে মধ্যে বিশেষ করে বিরিয়ানি ও প্রসাধনীতে ব্যবহার করা হয়। এছাড়াও বিভিন্ন রোগ নিরাময়েও জাফরানের বিশেষ গুনাগুন রয়েছে। তবে এই জাফরান ফুল থেকে ফল হয় না। বিশেষ পদ্ধতিতে জাফরান চাষ করা হয়। নিচে চাষ পদ্ধতি নিয়ে আমরা বিস্তারিত আলোচনা করবো।

 

জানতে হবে, জাফরান অর্থ কি?

জানা যায় ইংরেজিতে Saffron বা জাফরান এর বাংলা অর্থ দুটি নদী। মূলত আরবি ভাষা থেকে এর উৎপত্তি এর বৈজ্ঞানিক নাম Crocus Sativus. অনেকের কাছে জাফরান কুমকুম নামেও পরিচিত।

 

জাফরানের উৎপাদনের  স্থল

জাফরানের সঠিক উৎপত্তিস্থল নিয়ে মতভেদ রয়েছে। অনেকের মতে এর উৎপত্তিস্থল ইরান। তবে গ্রিস এবং মেসোপটেমিয়াতেও জাফরানের দেখা মিলে। এছাড়াও কাশ্মীর, আফগানিস্তান, মরক্কো, ইটালি, ক্যানাডা, উত্তর আফ্রিকা, উত্তর আমেরিকা এবং ওশেনিয়া অঞ্চলের জাফারানের চাষাবাদ হয়ে থাকে। পৃথিবীর মোট জাফরানের ৯০ শতাংশই ইরান সরবরাহ করে থাকে

 

জাফরানের দাম

মহা-মুল্যবান এই মশলার নাম যেমন দামেও তেমন। প্রতি কেজি জাফরানের দাম প্রায় ৫০০০ মার্কিন ডলার। এটি পৃথিবীর সব থেকে দামি মশলা।

 

জ।ফরানের উপকারিতা

দামে ও নামের পাশাপাশি কাজের দিক থেকেও জাফরান কিন্তু একটুও পিছিয়ে নেই। প্রসিদ্ধ এই মশলাটির রয়েছে বহুমাত্রিক গুণাবলি ও উপকারিতা। চলুন ওক নজরে জাফরানের উপকারিতাগুলো জেনে নেওয়া যাক-

 

তবে মুল্যবান এই মশলাটিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ম্যাঙ্গানিজ, কপার, আয়রন, ভিটামিন সি সহ ১৫০ টি উপাদান যা কিনা মানব শরীরের অনেক উপকারে আসে।

 

মানুষের স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধিতে জাফরানের রয়েছে দারুন কার্যকরিতা। সাম্প্রতিক একটি গবেষণায় উঠে এসেছে জাফরান মানুষের স্মৃতি শক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। আর অনেক আগে থেকেই স্মৃতিশক্তি এবং পারকিনসন হাড়িয়ে যাওয়া লোকদের চিকিৎসায় জাপানে জাফরান ব্যবহারের প্রচলন রয়েছে।

 

তবে ভাইটালিটি বাড়াতে জাফরান ও দুধ পান করা যেতে পারে। প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে এক গ্লাস পরিমান দুধ ও এক চিমটে পরিমান জাফরান মিশিয়ে পান করুন আপনার শরীরের ভাইটালিটি বেড়ে যাবে।

 

শারীরিক উন্নতিতে জাফরান বিশেষ করে ওই সকল মেয়েদের যারা কিনা শারিরিক ভাবে অনুন্নত অর্থাৎ দেখলে রোগা রোগা লাগে। তারা প্রতিদিন রাতে জাফরন

 

গর্ভাবস্থায় জাফরান উপকার

নারীদের গর্ভবতী অবস্থায় জাফরান খাওয়ার প্রচলন অনেক আগে থেকেই। যা কিনা গর্ভবতী মায়েদের গর্ভকালীন নানা সমস্যা ও রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করে। চলুন গর্ভাবস্থায় জাফরান খাওয়ার উপকারিতা কি জেনে নেওয়া যাক-

 

শরীরের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ

মেয়েদের গর্ভকালিন সময়ে অনেক গর্ভবতী মায়েদের রক্তচাপ বেড়ে ও কমে যায়। খাদ্য তালিকায় জাফরান ও ভিটামিন জাতীয় ফলমূল, সবুজ শাক -সবজি রক্ত চাপ নিয়ন্ত্রনে সাহায্য করে থাকে।

 

শরীরের অস্বস্তি ও ক্লান্তি দূর

নানা ব্যাথা নিরাময়ে জাফরান বেশ কার্যকরী। বাচ্চা বড় হওয়ার সাথে সাথে টার নড়াচড়ার মাত্রা বেড়ে যায়। এবং মায়ের পেশিগুলোও বাচ্চার জন্য স্থান প্রসরিত করে সামঞ্জস্য করে নেয়। এই প্রক্রিয়া চলাকালীন সময় মায়েরা পেটে ব্যাথা অনুভব করে। গর্ভবতী কালিন সময়ে জাফরান গ্রহন করলে এই ব্যাথার মাত্রা কিছুটা কম অনুভব হয়।

 

মানব শরীরে আয়রনের স্তর বাড়ায়

তবে গর্ভাবস্থায় রক্তস্বল্পতা দেখা দেওয়া একটি কম সমস্যা। যা কিনা অনেকের মধ্যেই দেখা যায়। এই সময়ে বেশি পরিমান আয়রন সমৃদ্ধ খাবার গ্রহনের পরামর্শ দেওয়া হয়। নিয়মিত খাবার তালিকায় জাফরান রাখলে এটি আপনার শরীরে আয়রন ও হিমোগ্লোবিনের স্তর বজায় রাখতে সাহায্য করে।

 

তাছাড়াও ক্র্যাম্পস থেকে মুক্তি দেয়, হার্টের অসুখ থেকে রক্ষা করে, শ্বাসযন্ত্রের অসুস্থতা নিরাময় করে; মাড়িতে ব্যাথা নিরাময়ে সাহায্য করে, উন্নত ও স্বাস্থ্যকর হাড় গঠন করে।

জাফরান খাওয়ার সঠিক নিয়ম

তাছাড়া জাফরানের তো অনেক গুনাগুন শুনলাম তাহলে আপনার মনে প্রশ্ন আসতে পারে তাহলে কি ভাতের মতো কতোগুলো জাফরান নিয়ে খাওয়া শুরু করবেন? জি না, জাফরান খাওয়ার কিছু নিয়ম রয়েছে। চলুন জাফরান খাওয়ার নিয়মগুলো জেনে নেওয়া যাক-

 

তবে জাফরান খাওয়ার সবচেয়ে উত্তম সময় হচ্ছে রাত। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার

Facebook Comments Box